রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়ন

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়ন , পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল

কালাম আজাদকে নৌকায় সিল মেরে প্রবেশ করতে না দিলে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে উপজেলা

নির্বাচন অফিস। রোববার বিকেল ৫টায় নোটিশ দিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব চাওয়া হয়েছে।কারণ দর্শানোর

নোটিশে বলা হয়, বানেশ্বর ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ ৩১ ডিসেম্বর রাত ৮টার দিকে

নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে বলেন, নৌকায় সিল না দিলে কাউকে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। ” কেউ

নির্দেশনা না মানলে তালিকা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আপনার বক্তব্য বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম,

অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। আপনার এই বক্তব্যে ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়ন

সৃষ্টি হয়েছে এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা ভোটের পরিবেশ নিয়ে সন্দিহান হয়ে পড়েছেন। আপনার বক্তব্য সম্পূর্ণ নির্বাচনী আচরণবিধির পরিপন্থী। এ অবস্থায় কেন আপনার বিরুদ্ধে ইউনিয়ন পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা-2018 অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে না। চিঠি পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব দিতে অনুরোধ করা হলো।পুঠিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. জয়নুল আবেদীন প্রথম আলোকে বলেন, এ বিষয়ে গতকাল বিকেলে বিএনপির প্রার্থী অভিযোগ করেছেন। তাদের বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ায় বিষয়টি সামনে এসেছে। পরে বিকেল ৫টায় নৌকার প্রার্থীকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। কারণ দর্শানোর নোটিশের মেয়াদ শেষ হবে সোমবার বিকেল ৫টায়। জবাব না পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।কারণ দর্শানোর নোটিশের বিষয়ে জানতে নির্বাচন অফিস থেকে আজ আবুল কালাম আজাদকে ফোন করা হলে

 তবে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওর

তবে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওর বিষয়ে গতকাল তিনি বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি তা বলেছেন। পরে তা ভাইরাল হয়ে যায়। আসলে রাগ করেই বললেন। আর নেতাকর্মীদের একটু সাহস দিতে অনেক সময় লাগে। আসলে এমন কোনো কাজ নির্বাচনে হবে না। জনগণের ভোটে তিনি বিজয়ী হবেন।গত শুক্রবার রাতে বানেশ্বরে নির্বাচনী প্রচারণায় আবুল কালাম আজাদের দেওয়া ভাষণের ১ মিনিট ৪৯ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে তিনি বলেন, ভোটকেন্দ্রে গেলে নৌকায় সিল মেরে দেখাতে হবে। অন্যথায় তাদের ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। না হলে নেতা-কর্মীদের তালিকা করার নির্দেশ দেন তিনি।আবুল কালাম আজাদ বানেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তার বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অন্য প্রার্থীরাও। গতকাল প্রথম আলো অনলাইনে ‘নৌকা সিল দিতে হবে, না হলে ঢুকতে দেওয়া হবে না’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

আরো পড়ুন 

About work

Check Also

গত বৃহস্পতিবার সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগ-বিএনপি

গত বৃহস্পতিবার সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগ-বিএনপি

গত বৃহস্পতিবার সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগ-বিএনপি , সংঘর্ষের সময় হাতে আগ্নেয়াস্ত্রসহ চারজনকে শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.